প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন শায়খুল হাদীস মুফতী আমিনীর ইন্তিকাল

কোয়ালিটি আর্টিকেল নিয়ে দুঃশ্চিন্তা! দুর করুন আজই

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান, ইসলামী আইন বাস্তবায়ন কমিটির আমীর, জামিয়া কুরআনিয়া আরবিয়া লালবাগের সুযোগ্য প্রিন্সিপাল ও শায়খুল হাদীস প্রখ্যাত হাদীস ও আইন বিশারদ, দেশবরেণ্য আলেম ও সাবেক সংসদ সদস্য হযরত মাওলানা মুফতী ফজলুল হক আমিনী (রহ.) এর হঠাৎ মৃত্যুতে গভীর শোক ও তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করতে গিয়ে “ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরা ঢাকার” প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, বাংলাদেশের সর্বজন শ্রদ্ধেয় ইসলামী ব্যক্তিত্ব বিশিষ্ট আইন ও হাদীস বিশারদ হযরতুল আল্লামা ফক্বীহুল মিল্লাত মুফতী আব্দুর রহমান এক বাণীতে বলেন, মুফতী আমিনীর মৃত্যুতে জাতি হক্কানী ওলামায়ে কেরামের সঠিক ও সফল প্রতিনিধিত্বকারী এক অভিভাবককে হারালো। যার ফলে জাতি এ মুহুর্তে অভিভাবক হারা হয়ে পড়ল। ইসলামের সঠিক নেতৃত্ব দিতে গিয়ে দেশে ইসলামী আইন বাস্তবায়ন করার জন্য মুফতী আমিনী পদে পদে যে যুগান্তকারী পদক্ষেপগুলো নিতেন এবং যে সকল ভূমিকা রাখতেন তা তাঁর  মেধা, কুরআন হাদীসের পারদর্শিতা, একনিষ্ঠতা ও উচ্চপর্যায়ের হিম্মত ও সাহসের পরিচায়ক বলে তিনি মন্তব্য করেন। মুফতী আমিনীর মৃত্যুর সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে হযরত ফক্বীহুল মিল্লাত (দা:বা:) ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরাসহ তাঁর পরিচালনাধীন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন জামিয়া ও মাদরাসাগুলোতে মুফতী আমিনীর রুহের মাগফিরাত কামনা করার লক্ষ্যে ওস্তাদ-ছাত্রবৃন্দদের নিয়ে খতমে তাহলীল ও দু’আ দরুদের ব্যবস্থা

amini

করার সাথে সাথে তাঁর জানাযায় শরীক হওয়ার জন্য এক দিনের ছুটি ঘোষণা করেন। হযরত ফক্বীহুল মিল্লাত (দা:বা:) বসুন্ধরায় ফজরের নামায আদায় করার পর পর মুফতী আমিনীর লাশ দেখা ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করার জন্য জামিয়া কুরআনিয়া লালবাগে পৌঁছেন। মরহুমের লাশ এক নজর দেখার সাথে সাথে তিনি কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দু’আ করেন। পরে লালবাগ মাদরাসার অফিসে মরহুমের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করে তাদেরকে ধৈর্যধারণ করার উপদেশ দেন। এবং বলেন, মুফতী আমিনীকে হারিয়ে শুধু তোমরা একা শোকাহত নও। বরং তোমাদের সাথে আমরাসহ পুরো জাতি শোকাহত। পরদিন লক্ষ লক্ষ লোকের ভিড়ে হযরত ফক্বীহুল মিল্লাত (দামাত বারাকাহুতুম) মরহুমের জানাযায় অংশ নেন। তিনি বলেন, মরহুমের মৃত্যুতে যে স্থান শূন্য হয়েছে বাহ্যিক দৃষ্টিতে যদিও তা পূরণ হওয়ার মত নয়, কিন্তু আল্লাহ পাকের কুদরতের বাইরেও নয়। তাই আমরা আল্লাহর দরবারে দ’ুআ করি যাতে জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে জাতির সঠিক দিক-নির্দেশনা দানকারী ও প্রতিনিধিত্বকারী অভিভাবক আল্লাহ পাক সৃষ্টি করে দেন এবং মুফতী আমিনীর রেখে যাওয়া অসম্পূর্ণ কাজগুলো সমাপ্ত করতে পারেন। আমীন ।

Be the first to comment

Leave a Reply