ফ্রীল্যান্সিং এর কাজ শুরুর ৩১ দিনের এই ধাপের আজ হলো প্রথম দিন

ফ্রীল্যান্সিং এর কাজ শুরুর ৩১ দিনের এই ধাপের আজ হলো পঞ্চম দিন

July 5, 2017 0

আপনার কাহিনী বলুন ফ্রীল্যান্সিং কাজ শুরুর ৩১দিনের এই ধাপে আজ হলো পঞ্চম দিন ( অথবা নিজেকে আরো ভালো ভাবে তৈরি করার দিন)। ১ম দিন সম্পর্কে বিস্তারিত>>

how to start freelancing

প্রতিদিন, আমরা একটি সুনির্দিষ্ট কাজে আমাদের মনোযোগ সন্নিবিষ্ট করবো, যা আপনাকে একটি লাভজনক ফ্রীলান্সিং ব্যবসা শুরু করতে সাহায্য করবে।যদিও এটি ৩১ দিনের একটি ধাপ, তারপর পনি আপনার নিজের গতিতে এগিয়ে যেতে দ্বিধা করবেন না  আর আপনি যদি ইতিমধ্যে ফ্রীল্যান্সিং করে থাকেন, তবু এটি আপনাকে এই কাজ গুলোর মধ্য দিয়ে এগিয়ে যেতে সাহায্য করব এ আশাবাদ ব্যক্ত করছি আপনি নিজেকে আরো উন্নত করার পথ খুঁজে পাবেন এবং আপনার চলমান ফ্রীল্যান্সিং ব্যবসাকে বর্তমানের চেয়ে  আরো লাভজনক এবং উপভোগ্য করার উপায় খুঁজে পাবেন  আমি আপনাকে এই কাজে সাহায্য করবো

তাহলে আপনি ফ্রীল্যান্সিং করবেন, এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিনন্দন! এটি আপনার আস্থার এমন একটি পর্যায়, যা কোনো সুনির্দিষ্ট কাজে সম্পৃক্ত না থাকায় আপনি করার জন্য উৎসুক হয়ে উঠেছেন অথবা হতে পারে এটি এমন একটি স্বপ্ন, যা আপনি অনেক দিন ধরে দেখে আসছেন।উভয় ক্ষেত্রে, এটি কাজ শুরু করার জন্য উপযুক্ত সময়  

তাহলে আসুন, আপনার সাথে শুরু করা যাক

আপনি আসলে কি করতে পারেন?

আপনার সমস্ত দক্ষতার  একটি তালিকা তৈরি করে শুরু করুন।

একটি বড়, খালি  শীট এবং একটি কলম বা পেন্সিল নিন এবং প্রতিটি জিনিস যা  আপনি করতে পারেন তার একটি  তালিকা তৈরী করুন।

এই সম্পর্কে খুব বেশি চিন্তা করবেন। এটি গভীর ভাবে চিন্তা ভাবনার একটি বিষয়, যেখানে আপনি আপনার ধারণাকে সম্পাদন, মূল্যায়ন বা বিচার করবেন।  একমাত্র নির্ণায়ক মানদণ্ড হবে যা কিছু আপনি লিখছেন, এর মধ্যে কিছু অন্তত পক্ষে আপনি করছেন, এমন একটি দক্ষতা, যা ইতিমধো আপনার আয়ত্ত্বে রয়েছে। তাই দয়া  করে আপনার শখ গুলো এখানে সংযুক্ত করবেন না, যদি না আপনি ওই ক্ষেত্রে আপনি ফ্রীল্যান্সিং করতে চান।

আপনি এটাতে ভালো কিনা এটা নিয়ে ভাবেন না, অথবা আপনি এটা করতে উপভোগ করছেন কিনা বা করার কোনো বিশেষ প্রয়োজন আছে কিনা, সেটা ভাবেন না।

চাকুরী রত থাকা অবস্থার আপনার দক্ষতা গুলোর কথা ভাবুন।  যথারীতি যেসব বিষয়ে আপনি পড়াশোনা করেছেন বা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।  এবং ওই দক্ষতা গুলোর কথা উল্লেখ করতে ভুলবেন না, যে গুলো আপনি নিজের চেষ্টায় অর্জন করেছেন।

যতক্ষণ আপনার আর কিছু মনে না পড়ে,  লিখতে থাকুন। এবং এর পর আপনার পরিবারের সদস্য দের  এবং আপনার বন্ধু বান্ধবদের জিজ্ঞাসা করুন, তাদের কি ধারণা, আপনি কি কি কাজ করতে পারেন (আবার ও বলছি, আপনি কিসে ভালো তা নয় , ইতিমধ্যেই  আপনি যা কিছু করেছেন, তেমন বিষয় গুলো)?

তখনি থামুন, যখন আপনার মনে হয়, যে আপনি সব গুলো বিষয়েই  লিখে ফেলেছেন।

আপনার কি  কাগজে  নাকি  কম্পিউটারে লেখা উচিত? যা আপনার জন্য  সবচেয়ে ভাল কাজ করে, সেটি ব্যবহার  করুন ।

আমি কাগজ ও কলম ব্যবহার  করার মাধ্যমে আরো ভালো ভাবে চিন্তা করতে পারি, বিশেষত যদি সেটা হয় একটি বড় , সাদা কাগজ। অন্যথায় যেন মনে হয়, কাগজে লিখা লাইন গুলো আমার চিন্তা করার শক্তিকে সীমিত করে ফেলছে।

কিন্তু এটা আপনার ক্ষেত্রে এটা  নাও হতে পারে।  হয়তো কম্পিউটার এর স্ক্রিন এর সামনে আপনার মাথা যেন পাগল হওয়ার উপক্রম হয়, যদি এমন না হয়ে থাকে, তবে আপনার লিস্ট টি কম্পিউটার এ টাইপ করুন, আপনি https://www.mindtools.com জাতীয় কোন সফটওয়ারও ব্যবহার করতে পারেন।

এখন আমরা বিশ্লেষণ করবো

আপনার লিস্ট টি সম্পূর্ণ করার পর আজকের কার্য  তালিকার পরবর্তী অংশে যাওয়ার পূর্বে আপনি হয়তোবা একটু বিরতি চাইবেন। আপনার দক্ষতা কে বিশ্লেষণ করুন।

আপনার দক্ষতা গুলোর দিকে তাকান এবং সিদ্ধান্ত নিন:

> কোন কাজটিতে আপনি আসলেই ভালো?

> কোন কাজটি করতে আপনি বেশি উপভোগ করেন?

> কোন কাজটির খুব ভালো চাহিদা রয়েছে?

নীতিগত ভাবে খেয়াল করলে লক্ষ্য করবেন, আপনি কিছু কাজ সনাক্ত করতে পারছেন, যা তিন ধরণের বর্ণনার সাথেই মিলে  যাবে, যেভাবে নিম্ব বর্ণিত গ্রাফিকসটির  মাঝখানের  অংশটির  সাথে মিলে  যায় , যেখানে তিনটি সার্কেল সমাপতিত হচ্ছে।

তৃতীয় আইটেমটি নিয়ে এখন (চাহিদা ) খুব বেশী চিন্তা করবেন না। আপনি পরবর্তীতে কখনো এটি আবার দেখে নিবেন, যখন আপনি জানতে পারবেন আপনার টার্গেট ক্লায়েন্ট কি চান।

আমি আপনার দক্ষতা গুলো কে ঠিক এই ধরণের একটি ছাচে ফেলে দেখার পরামর্শ দিবো।

বিভিন্ন ধরণের কাজ ভালো ভাবে করতে জানা উপভোগ করা চাহিদা মোতাবেক
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ করা নিবন্ধ
প্রেস রিলিজ লেখা
ব্লগ পোস্ট লেখা
হোয়াইট পেপার লেখা

 

আবার ও বলছি, এই পরীক্ষাটি নিয়ে বেশি চিন্তা করবেন না।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, ব্যাপারটিকে পরিপূর্ণ রূপে  এবং সৎ ভাবে দেখতে হবে।

আজকের এই পরীক্ষাটি আপনার সেবা প্যাকেজটিকে এক সাথে উপস্থাপনের জন্য একটি ভিত্তি হতে পারে।

আপনাকে আর চিন্তায় না ফেলে আমরা বিষয়টিকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিতে চাই।

দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকুন এবং পরীক্ষাটিকে উপভোগ করুন।

আপনি যদি আনন্দের সাথেই কাজ করতে না পারেন, তাহলে ফ্রীল্যান্সিং আর কি জন্য করছেন?

দ্রষ্টব্য: যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচের মন্তব্য অংশে তা  পোষ্ট করুন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


Enjoy this blog? Please spread the word :)